২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশের কাতারে শামিল হতে গেলে যুবসমাজকে মাদকদ্রব্যে থেকে রক্ষা করতে হবে হুইপ ইকবালুর রহিম।

এনামুল মবিন(সবুজ), স্টাফ রিপোর্টারঃ দিনাজপুর শহরের কুঠিবাড়ি সেক্টর হেডকোয়ার্টারে ৪২ বিজিবির ও ২৯ বিজিবি কর্তৃক মাদকবিরোধী অভিযানে আটককৃত মাদকদ্রব্য ধ্বংস করুন অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশের কাতারে শামিল হতে গেলে যুবসমাজকে মাদকদ্রব্যের করাল গ্রাস থেকে রক্ষা করতে হবে জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম (এমপি)।

বৃহস্পতিবার (২জুন) সকালে দিনাজপুর শহরের কুঠিবাড়ি সেক্টর হেডকোয়ার্টারে ৪২ বিজিবির ও ২৯ বিজিবি কর্তৃক মাদকবিরোধী অভিযানে আটককৃত মাদকদ্রব্য ধ্বংস করুন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম (এমপি)।


হুইপ ইকবালুর রহিম বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশ উন্নত দেশের কাতারে ২০৪১ সালের মধ্যে শামিল হবে। ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশের কাতারে শামিল হতে গেলে যুবসমাজকে মাদকদ্রব্যের করাল গ্রাস থেকে রক্ষা করতে হবে। এজন্য সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে। মাদকদ্রব্যের বিরুদ্ধে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছেন। যুবসমাজকে মাদকদ্রব্যের করাল গ্রাস থেকে রক্ষা করতে না পারলে উন্নত দেশের কাতারে শামিল হওয়া কষ্টকর হবে ।


তিনি আরো বলেন, দিনাজপুর তথা বৃহত্তর দিনাজপুর একটি সীমান্ত বিস্তৃত এলাকা ।এখানে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ বেশ কষ্টসাধ্য তাই সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বাহিনীকে এ বিষয়ে আরো জোরালো পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানান তিনি ।
এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, উত্তর-পশ্চিম রিজিওনাল কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এবিএম নওরোজ এহসান, জেলা প্রশাসক খালেদ মোহাম্মদ জাকি, দিনাজপুর সেক্টর কমান্ডার কর্নেল মোঃ গোলাম মহিউদ্দিন খন্দকার, জয়পুরহাট ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক কর্নেল মোঃ রফিকুল ইসলামসহ প্রশাসনের বিভিন্ন স্তরে কর্মকর্তাবৃন্দ।


এ সময় বিভিন্ন এলাকা থেকে প্রায় তিন কোটি ৩০ লক্ষ টাকার মাদকদ্রব্য ধ্বংস করা হয়।