বীরগঞ্জে জমি নিয়ে বিরোধে সংখ্যালঘুর বাড়িঘর ভাঙচুর, আহত ৪, আটক ২

বীরগঞ্জে জমি নিয়ে বিরোধে সংখ্যালঘুর বাড়িঘর ভাঙচুর, আহত ৪, আটক ২
মোঃ তোফাজ্জল হোসেন, বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি : দিনাজপুরের বীরগঞ্জে জমি সংক্রান্ত বিরোধে বাড়ি-ঘরে হামলা ও ভাঙচুর করেছে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় নারীসহ ৪ জনকে গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গত বুধবার বেলা দেড়টার দিকে উপজেলার মরিচা ইউনিয়নের মহাদেবপুর খোলাকুটি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনায় জড়িত থাকা বাবা ও ছেলেকে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে আটক করেছে পুলিশ। এলাকাবাসী ও মামলার সূত্রে জানা যায়, ৫ শতাংশ জমি ১ লাখ ১৫ হাজার টাকা দরে তিন বছর আগে ৯০ হাজার টাকা প্রাথমিক পর্যায়ে আব্দুল খালেকের ছেলে মহির উদ্দিনের নিকট পরিশোধ করে ওই জমিতে বসবাস করে আসছিল একই এলাকার প্রধান অধিকারীর বড় ছেলে ভূমিহীন হতদরিদ্র দমাসু। পরবর্তীতে দমাসু অনেক কষ্টে ২৫ হাজার টাকা যোগাড় করে মহির উদ্দিনের কাছ থেকে জমি রেজিস্ট্রি করে দেওয়ার কথা বললে, তা না করে নানানভাবে তালবাহানা করে সময় কালক্ষেপণ করে আসছিল। বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য ও গণ্যমান্য ব্যাক্তিদের উপস্থিতিতে একাধিকবার আলোচনার মাধ্যমে মীমাংসা করে দেন। কিন্তু বুধবার বেলা দেড়টার দিকে গাছ কাটা হাসুয়া, লাঠি-সোটা নিয়ে মহিরের নেতৃত্বে তার স্ত্রী লিপি বেগম, আব্দুল খালেক, খালেকের স্ত্রী মরিয়ম, মৃত সামসুল হকের ছেলে সাইফুল ইসলাম দলবদ্ধ হয়ে হামলা চালিয়ে দমাসুর বাড়িঘর ভাংচুর করে। এসময় বাঁধা দিলে দমাসুর স্ত্রী রুপানী অধিকারী, মা তিলোত্তমা অধিকারী, ছোট ভাই ধরনী অধিকারী, ধরণীর গর্ভবতী স্ত্রী মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। তাৎক্ষণিকভাবে এলাকাবাসী এগিয়ে আসলে হামলাকারীরা প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। পরে এলাকাবাসী ও স্থানীয়দের সহযোগিতায় আহতদের বীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এব্যাপারে দমাসু বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। মামলা নং ৩, তারিখ ০১-০৭-২০২২ইং। মামলার প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে আসামী আব্দুল খালেক ও তার ছেলে মহির উদ্দিনকে আটক করেছে পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *