বীরগঞ্জে আবারো ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে দোকান ঘর নির্মাণ।

বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার শতগ্রাম ইউনিয়নে আদালতের ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে নিয়মনীতি তোয়াক্কা না করে একের পর এক অবৈধভাবে নির্মাণ কার্যক্রম চালিয়ে জমি দখলে নিতে উঠে পড়ে লেগেছে দেবারুপাড়া গ্রামের মৃত. ডাঃ রহিম উদ্দীনের ছেলে ভূমিদস্যু শিহাবুর রহিদ শাহীন, ফজল আলীর ছেলে মফিজ ও মানিক সহ একটি ভূমিদস্যু চক্র। জানা যায়, ক্রয়কৃত ও দীর্ঘদিনের ভোগদখলীয় দেবারুপাড়া মৌজার ৩৩৩ খতিয়ানের ৩০৯১ দাগের ৩৭ শতক জমির প্রকৃত  মালিক দেবারুপাড়া গ্রামের মৃত আবেদ আলীর ছেলে অসহায় বৃদ্ধ বুজুর আলী।

ভূমিদস্যু শিহাবুর রহিদ শাহীন সহ তার বাহিনী জমি জবরদখলের পায়তারা কালে নিজের জমি রক্ষার্থে দিনাজপুর অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্টেট আদালত (বীরগঞ্জ) বরাবর ফৌজদারি মামলা দায়ের করেন বুজুর আলী। যাহার নম্বর ১০০ পি/২০২১। মামলার প্রেক্ষিতে বীরগঞ্জ থানা কতৃক প্রকাশ্যে ও গোপন তদন্তে বুজুর আলীর জমি পুনরায় শিহাবুর রহিদ শাহীন জবরদখলের পায়তারা করছে ও উক্ত সম্পত্তিকে কেন্দ্র করে শান্তি-শৃংখলা ভঙ্গের গুরুতর আশঙ্কার সম্ভববনা রয়েছে বলে বিজ্ঞ আদালত বরাবর তদন্তের প্রতিবেদন প্রেরণ করা হলে মামলা নিস্পত্তি না হওয়ার পর্যন্ত উভয় পক্ষে নিজ নিজ অবস্থানে থাকার জন্য ১৪৪ ধারার নোটিশ জারি করা হয়। শিহাবুর রহিদ শাহীন বিজ্ঞ আদালত বরাবর হাজিয়া না দিয়ে পরপর ৩বার তার অ্যাডভোকেটের মাধ্যমে সময় চেয়ে উল্টো ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে একের পর এক নির্মাণ কাজ সহ সম্প্রতি ইট দিয়ে একাধিক দোকান ঘর নির্মাণ কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন।

এর আগেও আদালতের ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে রাতের আঁধারে ঘরের টিনের চালা নির্মাণ নিয়ে ২ এপ্রিল এবং ইট দিয়ে সামীনা প্রাচীর নির্মাণের ঘটনা নিয়ে ২৪ মে ২০২২ইং তারিখে বিভিন্ন জাতীয় ও স্থানীয় পত্রিকায় প্রকাশিত হয়। প্রাণের ভয়ে পরিবার নিয়ে মানবেতর জীবন-যাপন সহ জমি রক্ষার জন্য সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের নিকট ন্যায় বিচারের আশায় দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন অসহায় বৃদ্ধ বুজুর আলী। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *