বীরগঞ্জে আদালতের নির্দেশ অমান্য করে প্রতিপক্ষ কর্তৃক বাঁশ কর্তন।

বীরগঞ্জ(দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ দিনাজপুরের বীরগঞ্জের পল্লীতে শান্তি শৃঙ্খলা বিনষ্ট ও আদালতের নির্দেশ অমান্য করে প্রতিপক্ষ কর্তৃক জোরপূর্বক বাঁশ কর্তনের ঘটনা ঘটেছে।উপজেলার নিজপাড়া ইউনিয়নের চকবানারশী গ্রামে সন্ত্রাসী কায়দায় প্রকাশ্যে দিনদুপুরে ক্ষেতের বাঁশ কর্তন করেছে প্রতিপক্ষ একটি কুচক্রী সংঘবদ্ধদল। ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্য  চকবানারশী গ্রামের মোঃ সেরাজুল ইসলামের স্ত্রী জুলেখা খাতুন অভিযোগ করে জানান, দিনাজপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয় (রাজস্ব শাখা) এর ১০/০৩/২০১৯ খ্রীঃ ০৫.৫৫.২৭০০.০১১.০১০.০০১.১৯ – ৪৪৭ নং স্বারকে ক্ষুদ্র নৃতাত্ত্বিক গোষ্ঠির জমি বিক্রয়ের অনুমতি পত্র মোতাবেক ২৭/০৩/২০১৯ তারিখ ১৮০৮ নং দলিল নং মূলে নিজপাড়া ইউনিয়ন ভূমি অফিসের চকবানারশী মৌজার ১৪৯ জে. এল. নম্বরের ১৩৬৫ নং হোল্ডিং ও ১১৫৪ নং খতিয়ানভূক্ত ১৫৬০ দাগে ০.২১ এবং ১৫৬২ দাগের ০.৬৩ মিলে সর্বমোট ০.৮৪ একর জমির প্রকৃত মালিক কান্ঠার কিস্কু ও শিমন কিস্কুর নিকট হতে  ক্রয় করে উল্লেখিত জমি ১৪২৬ সন পর্যন্ত ভূমি উন্নয়ন কর পরিশোধ করে খারিজ কেস মূলে নিজ নামে নামজারী করে ইরি,আমন ধান ও অবশিষ্ট জমিতে বাঁশ লাগিয়ে পরম শান্তিপূর্নভাবে ভোগদখল  করে আসছেন।

এমতাবস্তায় ১ এপ্রিল,২০২২ ইং তারিখে একই এলাকার বুধরাই মার্ডির পুত্র বিশু মার্ডি,  মৃত. ফূসু মার্ডির পুত্র হাকিম মার্ডি ও মঙ্গলু মার্ডি,  মৃত শাহার আলীর ছেলে ইসমাইল হোসেন,মৃত পালুস মার্ডির পুত্র দুলাল মার্ডি সহ একটি সংঘবদ্ধ দল উল্লেখিত জমি দখলের পায়তারা চালিয়ে শান্তি শৃঙ্খলা বিনষ্ট করে এবং পরিবারের সদস্যদের প্রাননাশের হুমকি ধামকী দিয়ে আসছে। নিরুপায় হয়ে বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালত দিনাজপুর এ জুলেখা খাতুন বাদী হয়ে প্রার্থীর পক্ষে ফৌঃ কাঃ বিঃ আইনের ১৪৪ ধারামতে দরখাস্ত  ৮৭ পি/২০২২ আনয়ন করেন।  ম্যাজিস্ট্রেটের রেকর্ডের জন্য আদেশনামা ১৯/০৫/২০২২ ইং মোতাবেক উক্ত সম্পত্তিকে কেন্দ্র করে শান্তিভঙ্গের গুরুতর আশংকা আছে কিনা সে বিষয়ে বীরগঞ্জ থানার ওসিকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে ও প্রতিপক্ষকে কারণ দর্শনোর নির্দেশ প্রদান করেন।

এ ব্যাপারে ২০ মে ২০২২ ইং দুপুরে সরেজমিনে ঘটনাস্থল চকবানারশী গেলে জুলেখা খাতুনের বাঁশের থোপ থেকে তীর, ধনূক,বল্লম, দেশীয় অস্ত্র সস্ত্রে সজ্জিত হয়ে বাঁশ কর্তন করে নিয়ে যেতে দেখতে পাওয়া কাপু মনি, বিশু মার্ডি, হাকিম মার্ডিকে জিজ্ঞাসাবাদে সাংবাদিকদের  জানায়, নিজেদের পারিবারিক  সম্পত্তির বাঁশ কর্তন করেছে বলে দাবী করেন তারা। তবে উল্লেখিত জমির মালিকানার পক্ষে কোনোপ্রকারের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দেখাতে সক্ষম হয়নি । এব্যাপারে প্রশাসন সহ সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ভুক্তভোগী পরিবার।