ফুলবাড়ীতে সহকারী শিক্ষকদের ১০ম গ্রেড প্রদানে প্রস্তাবণা প্রণয়নের দাবিতে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি পেশ


প্লাবন শুভ, ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি
দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে গতকাল বুধবার প্রাথমিক সহকারী শিক্ষকদের ন্যায্যতা ও যোগ্যতার ভিত্তিতে ১০ম গ্রেড প্রদানে প্রস্তাবনা প্রধানমন্ত্রী বরাবর উপস্থাপন করার দাবি জানিয়ে মানববন্ধনসহ স্মারকলিপি পেশ করেছেন উপজেলার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকবৃন্দ।
সকাল সাড়ে ১১টায় উপজেলা শিক্ষা অফিসারের কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন উপজেলার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকরা। এ দাবির সাথে একত্মতা জানিয়ে মানববন্ধনে অংশ নেন প্রধান শিক্ষকরা।
মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন- সহকারী শিক্ষক মো. আব্দুল আলিম, সহকারী শিক্ষক সৈয়দ আপেল মাহমুদ দিপু, সহকারী শিক্ষক আবু তালেব, সহকারী শিক্ষক দিপংকর বর্মন, সহকারী শিক্ষক আনিছুর রহমান, সহকারী শিক্ষক আশরাফুল ইসলাম চৌধুরী, সহকারী শিক্ষক ফজলে রাব্বী, সহকারী শিক্ষক তমিজুল ইসলাম রকেট, সহকারী শিক্ষক মিলন সরকার, সহকারী শিক্ষক মোয়াজ্জেম হোসেন প্রমুখ।
পরে ১০ম গ্রেড প্রদানে প্রস্তাবনা প্রধানমন্ত্রী বরাবর উপস্থাপন করার দাবি জানিয়ে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মোসাম্মৎ হাসিনা ভূঁইয়ার মাধ্যমে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব বরাবর স্মারকলিপি পেশ করেন শিক্ষকরা।
জানা গেছে, বর্তমানে প্রাথমিক সহকারী শিক্ষকদের বেতন ১৩তম গ্রেডে মূল বেতন ১১ হাজার টাকার সঙ্গে বাসা ভাড়া ৪ হাজার ৯৫০, চিকিৎসা ভাতা ১ হাজার ৫০০ ও টিফিন ভাতা ২০০ টাকা মিলে মোট ১৭ হাজার ৬৫০ টাকা বেতনে প্রাথমিক সহকারী শিক্ষকগণ পরিবার-পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করে আসছেন। এ অবস্থায় তারা যোগ্যতার ভিত্তিতে ১০ম গ্রেড বাস্তবায়নে প্রধানমন্ত্রীর সদয় দৃষ্টি কামনা করেন।
এ ব্যাপারে সহকারী শিক্ষক মো. আব্দুল আলিম ও সৈয়দ আপেল মাহমুদ দিপু বলেন, আমরা ১৩তম গ্রেডে চাকরি করে আসছি। বর্তমান বাজারমূল্য অস্বাভাবিক বৃদ্ধির ফলে ঋণের বোঝা মাথায় নিয়ে হতাশা ও মনকষ্ট নিয়ে ক্লাসে পাঠদানসহ জীবিকানির্বাহ করতে হয়। তাই আমরা ১০ম গ্রেড বাস্তবায়নে প্রধানমন্ত্রীর সুদৃষ্টি কামনা করছি।
শিক্ষক দিপংকর বর্মণ ও আবু তালেব বলেন, ১৩তম গ্রেডে আমরা মানবেতর জীবনযাপন করছি। ছেলেমেয়েদের পড়াশুনা, চিকিৎসা ও সংসার পরিজন নিয়ে সমাজে চলতে হিমশিম খেতে হচ্ছে।
উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মোসাম্মৎ হাসিনা ভূঁইয়া বলেন, শিক্ষকদের যে যৌতিক দাবিদফা তারা আমাদের কাছে উপস্থাপন করেছেন। বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবগত করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *