পীরগঞ্জে কবর থেকে কংকাল চুরির সত্যতা পেয়েছে পুলিশ।

ফাইদুল ইসলাম,পীরগঞ্জ (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি

ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ পৌর শহরের ঐতিহাসিক পীরডাঙ্গী গোরস্তানের কবর থেকে কঙ্কাল চুরির ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে। আদালতে নির্দেশে বৃহস্পতিবার দুপুরে ম্যাজিষ্ট্রেট এবং চিকিৎসকের উপস্থিতিতে কবর খুড়ে কঙ্কাল চুরির হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছেন থানা পুলিশ।

পীরগঞ্জ থানার ওসি জাহাঙ্গীর আলম জানান, পীরডাঙ্গী গোরস্তানের পুরাতন কবর থেকে কঙ্কাল চুরির ঘটনা তদন্ত করতে আদালতের নির্দেশে প্রথম শ্রেনীর নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট কামরুল হাসান সোহাগ, উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রের ভারপ্রপ্ত আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ কৃষ্ণ চন্দ্র রায়ের উপস্থিতিতে গোরস্তানের সন্দেহ ভাজন ১৭টি কবর খুড়ে দেখা হয়। এর মধ্যে ৮টি কবরে কঙ্কাল বা হাড় হাড্ডি পাওয়া যায়নি। ৮টি কবরে কঙ্কাল বা হাড় হাড্ডি পাওয়া গেছে। একটিতে আংশিক হাড় হাড্ডির উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে। এ থেকে প্রাথমিক ভাবে বুঝা যাচ্ছ, কবর থেকে কঙ্কাল বা হাড় হাড্ডি চুরি ঘটনা ঘটেছে। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার (২৯ জুলাই) রাতে পীরডাঙ্গী গোরস্তানের প্রায় ২০টি পুরাতন কবর খুড়ে কঙ্কাল চুরির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় অজ্ঞাতনামা দুস্কৃতিকারীদের বিরুদ্ধে জনৈক শেখ সমশের আলী বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন। এর প্রেক্ষিতে কবর থেকে কঙ্কাল চুরির বিষয়টির সঠিক তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ করতে কবর খুড়ে দেখা বা কবরে অনুসন্ধানের জন্য আদালতের নির্দেশনা চান থানা পুলিশ। নির্দেশনা না পাওয়া পর্যন্ত গোরস্তানে দৃস্কৃতিকারীরা রাতের বেলায় আর যেন কোন ঘটনা না ঘটাতে পারে সেজন্য পীরগঞ্জ এবং দৌলতপুর ইউনিয়ন পরিষদ থেকে দুই জন করে ৪ জন গ্রাম পুলিশকে গোরস্তান পাহারায় নিয়োজিত করা হয়। অবশেষে আদালতের নির্দেশ মতে কবর খুড়ে দেখা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *