পঞ্চগড়ের নৌকাডুবির ৫ মরদেহ জেলার খানসামা উপজেলার আত্রাই নদী থেকে উদ্ধার।

এনামুল মবিন(সবুজ)

স্টাফ রিপোর্টার.

পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলায় করতোয়া নদীতে নৌকাডুবির ঘটনায় ভেসে যাওয়া চার নারী ও এক শিশুর মরদেহ দিনাজপুর খানসামা উপজেলা থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। 

সোমবার(২৬ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত দিনাজপুর জেলার খানসামা উপজেলার আত্রাই নদীর বাসুলী চেয়ারম্যান পাড়া, জয়ন্তীয়া ঘাট ও ঘাটপার থেকে এসব মরদেহ উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃতদের মধ্যে চারজন নারী ও একজন শিশুর রয়েছে।

উদ্ধারকৃত পাঁচজন ব্যক্তিরা হলেন, পঞ্চগড়ের আটোয়ারী উপজেলার শক্তিপদ রায়ের স্ত্রী ঝর্ণা বালা রায় (৫২), বোদা উপজেলার সহিন রায়ের স্ত্রী সুমিত্রা রাণী, বিমল চন্দ্র রায়ের ছেলে সূর্য রায়, ঠাকুরগাঁও সদরের অনন্ত রায়ের স্ত্রী পুষ্পারাণী (৫২) ও দেবীগঞ্জ উপজেলার ভূপেন রায়ের স্ত্রী রুপালী রায় (৩৭)।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন খানসামা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের ভারপ্রাপ্ত স্টেশন অফিসার মমতাজ ইসলাম। 

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের ভারপ্রাপ্ত স্টেশন অফিসার বলেন, পঞ্চগড়ের করতোয়া নদীতে রোববারের নৌকাডুবিতে নিহতের ঘটনায় এসব মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। মরদেহ উদ্ধারে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিস, থানা-পুলিশ ও স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবকেরা।

খানসামা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চিত্তরঞ্জন রায় বলেন, উদ্ধারকৃত পাঁচজনের মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, খানসামা থেকে নদী পথে বোদা উপজেলার দূরত্ব প্রায় ৩৫ কিলোমিটার। গতকাল বেলা ৩টার দিকে পঞ্চগড়ের বোদায় উপজেলার মাড়েয়া ইউনিয়নে অবস্থিত করতোয়া নদীর আউলিয়া ঘাট থেকে শতাধিক পুণ্যার্থী নিয়ে একটি নৌকা বদ্বেশ্বরী মন্দিরে যাচ্ছিল। কাটি নদীর মাঝে গেলে মোড় নেওয়ার সময় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ডুবে যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *