নারীরা ফুটবলের অনুপ্রেরণা তাদের মাধ্যমে দেশের নাম বিশ্বদ্বারে -সাবেকমন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান এমপি

প্লাবন শুভ, ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি
প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি সভাপতি দিনাজপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক গণশিক্ষা মন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার এমপি বলেছেন, সার্ফ অনূর্ধ্ব-১৯ ফুটবলে শিরোপা জয় করেছে বাংলাদেশের নারা ফুটবলাররা। তাদের মাধ্যমে বাংলাদেশের নারী ফুটবলারদের ইতিহাস রচিত হয়েছে বিশ্বজুড়ে। নারী ফুটবলাররা প্রমাণ করেছেন যে, দৃঢ় মনোবল থাকলে শক্তিশালী প্রতিপক্ষকে হারানো সম্ভব। আজ যারা শিরোপা জয় করে দেশের নামকে বিশ্বে ছড়িয়েছে তারা সকলে প্রত্যান্ত অঞ্চলের। তারা তাদের ইচ্ছাশক্তি ক্রীড়াশক্তিকে কাজে লাগিয়ে নিজেদেরকে বিশ্বের দরবারে দাঁড় করেছে। তাই আজ যারা মফঃস্বলের মাঠে-ঘাঠে ফুটবল খেলছে, তারাই আগামীতে দেশের জন্য খেলবে।
দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে বীর মুক্তিযোদ্ধা মোস্তাফিজুর রহমান ফুটবল একাডেমির উদ্যোগে আয়োজিত শেখ রাসেল গোল্ডকাপ বালিকা ফুটবল টুর্ণামেন্টে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথা বলেছেন।
তিনি আরো বলেন, সমাজের বাধা-বিপত্তি, বিরোধিতাসহ নেতিবাচক পরিস্থিতি দৃঢ়তার সঙ্গে মোকাবিলা করেই মেয়েরা চ্যালেঞ্জ (শিরোপা জয়) জিতেছেন। যা একসময় ভাবা যায়নি। মেয়েরা ক্রীড়াঙ্গনের দৃষ্টিভঙ্গি পাল্টেছেন। মানসিকতা পরিবর্তন আনার লড়াই চালাচ্ছেন। নারীরা কোনোকিছুতেই পিছিয়ে থাকবে না। তারই দৃষ্টান্ত প্রমাণ আজকে যে নারীরা মাঠে ফুটবল খেলছেন।
গত বৃহস্পতিবার বিকেলে উপজেলা রুদ্রানীস্থ মিনি স্টেডিয়ামে আয়োজিত ফুটবল টুর্নামেন্টে সভাপতিত্ব করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মোস্তাফিজুর রহমান ফুটবল একাডেমির সভাপতি উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুশফিকুর রহমান বাবুল।
এতে একাডেমির পরিচালক তরিকুজ্জামান শুভর পরিচালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মঞ্জু রায় চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অধ্যক্ষ মিজানুর রহমান, দফতর সম্পাদক এনমুল হুদা, দিনাজপুর জেলা পরিষদের নবনির্বাচিত সদস্য শফিকুল ইসলাম বাবু প্রমুখ।
এতে রেফারির দায়িত্ব পালন করেন তারিকুজ্জামান শুভ, সহকারী রেফারি রয়েল হাসদা ও জনি মন্ডল, চতুর্থ রেফারি হিসেবে মো. শহিদুজ্জামান বাবু, ধারা বর্ণনায় তাইফুল ইসলাম তপু ও আরাফাত রতন প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *