দিনাজপুর ঘোড়াঘাটে তালাকপ্রাপ্ত স্ত্রীর উপর অভিমান করে যুবকের আত্মহত্যা।

এনামুল মবিন(সবুজ), স্টাফ রিপোর্টারঃ দিনাজপুর ঘোড়াঘাটে তালাকপ্রাপ্ত স্ত্রীকে নিয়ে আবারও সংসার করার ইচ্ছা, স্ত্রী রাজি না হওয়ায়  স্ত্রীর উপর অভিমান করে ইমরান মিয়া (৩২) নামের ১ যুবক আত্মহত্যা করেছে।

গতকাল সোমবার সন্ধায় ঘোড়াঘাট পৌর এলাকার লালমাটি গ্রামে নিজ বাড়িতে কীটনাশক বিষ পান করেন তিনি। পরে পরিবারের লোকজন তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করলে, দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।

পরিবারের বরাত দিয়ে সংশ্লিষ্ট ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শাহিদ পারভেজ জানান, দীর্ঘ কয়েক বছর আগে ৩ সন্তানের জননী এক নারীর সাথে বিবাহ হয় নিহত ইমরানের। পারিবারিক নানা সমস্যার কারণে প্রায় গত ১ মাস আগে স্ত্রী তাকে তালাক দেয়।

তবে স্ত্রী তাকে তালাক দেওয়া সত্বেও,সেই ওই স্ত্রীকে নিয়েই পুণঃরায় সংসার করতে চায়। এ নিয়ে সোমবার বিকেল উভয়পক্ষ থানায় আলোচনায় বসে। তবে সেই আলোচনায় ইমরানের তালাকপ্রাপ্ত স্ত্রী পুণঃরায় সংসার বাঁধতে রাজি না হওয়ায়,নিহত ইমরান নিজ বাড়িতে গিয়ে কীটনাশক পান করে।

এর আগে সোমবার দুপুরে মাদক সেবন করার অপরাধে পুলিশ তাকে আটক করে। পরে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ঘোড়াঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রাফিউল আলম তাকে ১ হাজার টাকা অর্থদন্ড করে।

ঘোড়াঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. তৌহিদুল আনোয়ার বলেন, সোমবার বিকেলে পুলিশ তাকে হাসপাতালে নিয়ে এসেছিল। সে সময় নিহত ইমরান মাদক সেবন করা অবস্থায় ছিল। একইদিন সন্ধায় পরিবারের লোকজন বিষপান করা অবস্থায় তাকে আবারো হাসপাতালে ভর্তি করে। তবে ততক্ষণে বিষক্রিয়া তার পুরো শরীরে ছড়িয়ে পড়ায় তাকে বাঁচানো সম্ভব হয়নি।

এদিকে ঘোড়াঘাট-হাকিমপুর সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার শরিফুল ইসলাম বলেন, সাবেক স্ত্রীর উপর অভিমান করে তিনি বিষপান করেছে। আমরা একটি অপমৃত্যুর মামলা করেছি এবং মরদেহটি ময়না তদন্তের জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *