তিস্তার ডানতীর বাঁধ নির্মাণ হওয়ায় স্বস্তিতে এলাকার জনজীবন

ডিমলা নীলফামারী প্রতিনিধিঃ নীলফামারী ডিমলা উপজেলা পার্শ্ববর্তী উপজেলা জলঢাকা ডাউয়াবাড়ী তিস্তা নদীর ডানতীর বাঁধ নির্মাণ হওয়ায় স্বস্তি ফিরে পেয়েছে  এলাকার জনজীবন। 

বিগত বছর হতে অদ্যবদি খরস্রোতা তিস্তা নদী কেঁড়ে নিচ্ছে হাজার হাজার মানুষের বশতভিটা, আবাদি ফসল ও গবাদি পশু যার ফলে সকালে যে ছিল অটল সম্পদের মালিক বিকালে সে পথের পথিক।  সব কিছু হারিয়ে অবশেষে স্থান নেই এই তীনের কিনারায় এখানো নদী আঘাত হানা শুরু করে।অবশেষে ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ড এর সহায়তা আমরা রক্ষা পাই।

 মনটাই জানালেন ভুক্তভোগী তছলিম উদ্দিন, তোতা মিয়া,দুলু মিয়া,আমজাদ আলী প্রমুখ।

এ সময় কথা হয় ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ড এর নির্বাহী প্রকৌশলী আসফাউদদৌলা ও ডালিয়া পওর শাখা উপ বিভাগীয় প্রকৌশলী অমিতাভ চৌধুরী এর সঙ্গে তাঁরা বলেন তিস্তা নদী বর্তমানে ভিন্ন রুপে রুপান্তরিত হয়ে যত্রতত্র চ্যাানেল বের হয়ে এখনও বশতবাড়ী, আবাদি ফসল ধ্বংসাবশেষ করছে। যার কবল থেকে রেহাই পাইনি তিস্তার ডানতীর বাঁধ। 

বাঁধটি রক্ষায় তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়  এবং তা নির্মাণে যুগপৎ ব্যবস্থা গ্রহনের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়। এর ফলে ওই এলাকা জুড়ে নেমে এসেছে স্বস্তির নিশ্বাস। 

 তিস্তা নদী ভাঙ্গনের হাত থেকে নিস্তারের পথকি জানতে চাইলে নির্বাহী বলেন তিস্তা মহাপরিকল্পনা। এটি বাস্তবায়ন হলে উত্তরবঙ্গের জনমানুষের ভাগ্যের চাকার আমুল পরিবর্তন হবে। এতে আরও কথা হয় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ৬ নং নাউতারা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আশিক ইমতিয়াজ মোরশেদ মনি এর সঙ্গে তিনি বলেন  ৬৫ মিটার দৈর্ঘ্যের বাঁধটি জিও ব্যাকে ২৫০ কেজি ওজনের বালু ভরাট করে শক্ত ও মজবুত করে এ বাঁধ দেয়া হচ্ছে। যা সার্বক্ষণিক তদারকি করছেন ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ড ৪ এর কর্মকর্তা উপ সহকারী প্রকৌশলী আপেল মাহমুদ। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *