ডোমারে স্বামী ফোন না ধরায় অভিমানে স্ত্রীর আত্মহত্যা।

আনিছুর রহমান মানিক, ডোমার (নীলফামারী) প্রতিনিধিঃ নীলফামারীর ডোমারে স্বামী ফোন রিসিভ না করায় অভিমানে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন আলিফা বেগম (২৫) নামের এক গৃহবধূ। বৃহস্পতিবার (১৯ মে) সন্ধ্যায় ডোমার উপজেলার পূর্ব চিকনমাটি জোড়পাখুড়ি কমিশনার পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।
আলিফা বেগম চিকনমাটি জোড়পাখুড়ি কমিশনার পাড়ার মাহাতাব হোসেনের মেয়ে ও রামগঞ্জ এলাকার জনি ইসলামের স্ত্রী। তাদের তিন বছর বয়সী এক ছেলেসন্তান রয়েছে। ডোমার পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আনারুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

কাউন্সিলর আনারুল ইসলাম আরো জানান, আলিফা বেগম আগে থেকেই অসুস্থ ছিলেন এবং তার ভাই আব্দুস সালাম তার চিকিৎসা করানোর জন্য ঢাকা থেকে ডোমারে নিয়ে আসেন। আলিফা সকাল থেকে তার স্বামীকে কয়েকবার ফোন দিলে স্বামী ফোন রিসিভ না করাতে স্বামীর উপর প্রচন্ডভাবে মন খারাপ করেন আলিফা বেগম। এরই এক পর্যায়ে সবার অগোচরে সন্ধ্যার দিকে ঘরের আড়ার সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন।

ধারণা করা হচ্ছে, স্বামীর ওপর অভিমান করে তিনি আত্মহত্যা করেছেন। ডোমার থানার অফিসার ইনচার্জ সাইফুল ইসলাম আত্মহত্যার ব্যাপারটি নিশ্চিত করে জানান, রাতে মরদেহ উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে এবং মেয়ের পরিবার ডোমার থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করে। আগামীকাল সকালে জেলায় লাশ পাঠিয়ে ময়নাতদন্ত্র শেষে পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হবে।