ডোমারে  নো হেলমেট, নো ফুয়েল থানা পুলিশের আয়োজনে কর্মসূচী পালিত।

মোঃ সুমন ইসলাম প্রামানিক,ডোমার (নীলফামারী) প্রতিনিধিঃ

নীলফামারীর ডোমার থানা পুলিশের আয়োজনে “নো হেলমেট নো ফুয়েল” কর্মসূচী পালিত হয়েছে। 

বৃহস্পতিবার (০১ ডিসেম্বর) সকাল থেকে উপজেলার ফিলিং স্টেশন গুলোতে ‘নো হেলমেট, নো ফুয়েল’ ব্যানার টানিয়ে দিয়ে এই কর্মসূচী পালন করেছে ডোমার থানা পুলিশ। পাশাপাশি মোটরসাইকেল আরোহীদের হেলমেট পরে মোটরসাইকেল চালানোর বিষয়ে সচেতন করতেই এমন উদ্যোগ নিয়েছে পুলিশ প্রশাসন।

শুধু ফেস্টুন টাঙ্গিয়ে দিয়েই তাদের দায়িত্ব শেষ হয়নি, এছাড়াও পুলিশের দায়িত্বপ্রাপ্ত সদস্যরা ফিলিং স্টেশনের সিসিটিভি ক্যামেরায় ধারণকৃত ভিডিও ফুটেজ দেখেও কার্যক্রমটির তদারকি করবেন। ফলে হেলমেট ছাড়া পেট্রোল বিক্রির সুযোগ নেই ফিলিং স্টেশনগুলোর।

ডোমার আমিনা রহমান ফিলিং স্টেশনের ম্যানেজার তপন রায় এবং মেসার্স ডোমার ফিলিং স্টেশনের ম্যানেজার সেম্বু নাথ রায় বলেন,  নীলফামারীতে পেট্রোল পাম্প মালিকদের সাথে মতবিনিময় সভায় পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান আমাদের যে নির্দেশনা দিয়েছে আমরা তা পালন করছি। পাম্পে তেল নিতে হেলমেট ছাড়া মোটরসাইকেল চালক এখন কমই আসছেন।

মোটরসাইকেল চালকের সাথে কথা বলে জানা যায়, চালক ও আরোহীদের নিরাপত্তার জন্য হেলমেট ব্যবহার জরুরী। কিন্তু দীর্ঘদিন ধরে হেলমেট ছাড়া চলাচল করে অনেকেই হেলমেট ব্যবহারে বিরক্তি বোধ করছেন। চলমান ট্রাফিক পুলিশের অভিযান ও ফিলিং স্টেশনের কঠোরতার কারণেই এখন সবাই হেলমেট ব্যবহার করছেন। 

এ বিষয়ে ডোমার থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদ উন-নবী বলেন, জেলা পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান ঘোষনা দিয়েছিলেন পহেলা ডিসেম্বর থেকে পুরো নীলফামারী জেলায় “নো হেলমেট, নো ফুয়েল” কার্যক্রম চালু হবে। স্যারের সেই নির্দেশনা মোতাবেক আমরা ডোমার থানা পুলিশ ডোমার এরই ধারাবাহিকতায় বিগত বেশ কয়েকদিন থেকে অনলাইনের মাধ্যমে এবং উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় মাইকিং এর মাধ্যমে প্রচার প্রচারণা চালিয়েছি।

তিনি আরো বলেন ডোমারের পেট্রোল পাম্প গুলোতে “নো হেলমেট, নো ফুয়েল” এর কার্যক্রম আজ শুরু হলো। এমন কার্যক্রমের মধ্য দিয়ে শতভাগ মোটরসাইকেল চালকের হেলমেট ব্যবহার নিশ্চিত করা সম্ভব বলে তিনি মনে করেন।

এদিকে গত ২৭ নভেম্বর বিকেলে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে পেট্রোল পাম্প মালিকদের সাথে মতবিনিময় সভায় পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান বলেছেন, চালকের মাথায় হেলমেট না থাকলে পেট্রোল না দেওয়ার জন্য পাম্প মালিকদের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন। একইসঙ্গে, অল্প বয়সীদের ড্রাইভিং লাইসেন্স আছে কি না তা যাচাইয়ের জন্যও বিশেষভাবে তাগিদ দেওয়ার বিষয়ে পরামর্শ প্রদান করেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *