ডিমলা ঝুনাগাছে স্বামীর হাতে স্ত্রী খুনের ঘটনায় স্বামী আটক।

ডিমলা নীলফামারী প্রতিনিধিঃ নীফামারীর ডিমলায় স্ত্রী সন্ধ্যা ঋষি (৪৫) কে হত্যার অভিযোগে স্বামী মানিক ঋষিকে (৫০) কে গ্রেফতার করেছে ডিমলা থানার পুলিশ।
শুক্রবার (১৫ এপ্রিল) সকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় (ডোমার-ডিমলা) সার্কেল আলী মোহাম্মদ আব্দুল্ল্যা এর নেতৃত্বে ওসি (তদন্ত) বিশ্বদেব রায়, এসআই ইমরান হোসেন, এসআই আখতারুজ্জামান সহ সঙ্গীয় ফোর্স লালমনিরহাট জেলার হাতিবান্ধা থানা পুলিশের সহায়তায় গুড্ডিমারি বাজারে অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত মানিককে গ্রেফতার করে।


এ ঘটনায় থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে নিহতের ছেলে শ্যামল ঋষি। নিহত সন্ধ্যা ঋষি (৪৫) উপজেলার ঝুনাগাছ চাপানী ইউনিয়নের কাকড়া বাজার সংলগ্ন ঋষিপাড়া গ্রামের মানিক ঋষির (৫৫) স্ত্রী। থানাসূত্রে জানা যায়, গত বুধবার (১৩ এপ্রিল) পারিবারিক কলহের জেরে স্ত্রী সন্ধ্যাকে শ্বাসরোধে হত্যার পর ঘরের চৌকিতে ফেলে পালিয়ে যায় মানিক। পরে প্রতিবেশীদের সন্দেহ হলে ঘটনাটি জানাজানি হয়।

খবর পেয়ে পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে। ডিমলা থানার ওসি (তদন্ত) বিশ্বদেব রায় ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় একটি হত্যা মামলা হয়েছে । যাহার মামলা নং- ১৭। আসামীকে গ্রেফতার করে বিকেলে নীলফামারী জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। উল্লেখ সুধী সমাজের মতে উল্লেখযোগ্য হারে অপরাধ প্রবণতা  ঝুনাগাছ চাপানী বেড়েই চলছে।