ডিমলায় প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে মানববন্ধন ।

ডিমলা নীলফামারী প্রতিনিধিঃ একজন অসহায়  পিয়ন এর বিরুদ্ধে মিথ্যা মাছ চুরির অপবাদ, বেতন কর্তন এবং পিয়ন এর পৈত্রিত জমি জবর দখলের প্রতিবাদে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছেন ভুক্তভোগী সহ এলাকাবাসী।

২৮ মার্চ (সোমবার) সকাল ১১ টায় নীলফামারী ডিমলা উপজেলা ৮ নং ঝুনাগাছ চাপানী হাট উত্তর ঝুনাগাছ চাপানী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে প্রধান শিক্ষক এস্কেনদার মির্জার বিরুদ্ধে উপরোক্ত অভিযোগের প্রতিবাদে ন্যায় বিচার চেয়ে মানববান্ধ করা হয়।

ঘন্টা ব্যাপি এ মানববন্ধনে ভুক্তভোগী মহেশ চন্দ্র রায় বলেন, ১৯৯৫ ইং সনে উক্ত প্রতিষ্ঠানে আমার পিতা মৃত্যু সিদ্ধেশ্বর বর্ম্মন ৪৯ নং জেএল, ১৮০৪/১খতিয়া এর ৪২৯৫ নং দাগে ৩৩ শতাংশ জমির দান পত্রের বিনিময়ে আমাকে পিয়ন পদে চাকুরী দেয়া হয়। আজ অবদি আমি চাকুরী করে আসতেছি।

উক্ত জমির পাশে একই জেএল এবং একই খতিয়ান ভূক্ত ৪২৯৬ নং দাগে ২৪ শতাংশ এবং ৪৩৮৩ নং দাগে ৬ শতাংশ জমিতে ৪ ভাইয়ের মধ্যে ৩ তিন ভাই জগদীশ চন্দ্র রায়, সচিন চন্দ্র রায় ও নীলকান্ত রায় ভোগ করে আসতেছে।

আমাদের ভোগ দেখলিও  জমির মধ্যে আমার পরিবারের আরও ৭ শতক জমি হেট স্যার জোরপূর্বক দখলে নিয়েছে, এবং আরও নেয়ার  হুমকি ধামকি পায়তারা করতেছে। এর প্রতিবাদ করতে গেলে আমার নামে নানান অপবাদ দিয়ে বেতন কর্তন সহ ২ লক্ষ টাকার মাছ চুরির অপবাদ ও প্রাণ নাশকের হুমকি দিয়ে, আমাদের বিভিন্নভাবে হয়রানী করছেন প্রধান শিক্ষক এস্কেদার মির্জা ।

আমরা শান্তি প্রিয় মানুষ, শান্তিতে থাকতে চাই,  যদি আমাদের প্রতি ন্যায়র বিচার না করা হয় তাহলে এ কর্মসূচি আরও বেগবান হবে।