ডিমলায় পৈত্রিক সম্পক্তি ফিরত পেলেন আব্দুল মাতিন।

ডিমলা নীলফামারী প্রতিনিধিঃ নীলফামারী ডিমলা উপজেলা ৮ নং ঝুনাগাছ চাপানী ইউনিয়ন দঃসোনাখুলি এলাকার স্থায়ী বাসিন্দা আব্দুল মাতিন দীর্ঘ দিন পর ফিরত পেলেন পৈত্রিক জমি।

এসময় তিনি বলেন এত দিনে আমার চাচারা তাদের নিজ অংশ বিত্রি করেন একই এলাকার মৃত্য শহর উল্লার ছেলে হোসেন আলী, হাসেন আলী ও মৃত্যু খুদু মামুদ এর ছেলে সোলামান আলীর নিকট। বর্তমানে হাসেন আলী বাদে সকলে মৃত বরন করেন। 

 আমার পিতা মৃত্যু নছিম উদ্দিন এর অংশ সহ মৃত্য সোলেমান আলী এর ছেলে জহুরুল গং জবর দখল করে ভোগ করে আসছে।যার জে,এল নং ৫৪  খতিয়ান নং ৮১৮ দাগ নং ৪৪১০,৪৪১১ মোট জমি ১ এককর ৪৯শতাংশ। আমি প্রাপ্ত বয়স্ক হয়ে জানতে পারি বিক্রিত জমিতে পিতার অংশ আছে। স্থানীয় ভাবে বিষয়টি সমাধান করতে চাই।তারা সমস্যা সমাধান কথা বলে কাল ক্ষেপন করেন। পরিশেষে স্থানীয় ভাবে সুষ্ঠু সমাধান না পেয়ে ১৮ অক্টোবর (মঙ্গলবার) সকালে স্থানীয় গন্যমান্য, সূধীজন ও এলাকাবাসীর উপস্থিতি সার্ভেয়ার এর মাধ্যমে জমির সীমানা নির্ধারণ করে। দখল সত্ত স্থাপান করি।এ সময কথা হয় সমাজ সেবক তৈয়ব আলী (মাষ্টার) হবিবর রহমান,মতিয়ার রহমান প্রমূখ এর  সঙ্গে তারা বলেন তিনি একজন  সহজ সরল অত্যন্ত সম্মানিত ব্যক্তি জমি যে তার এতে বিন্দু পরিমাণ সন্দেহ নেই

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *