ডিমলায় ন্যায় বিচার পাইতে রিভিশন মোকদ্দমা সোনাউল্যার

ডিমলা নীলফামারী প্রতিনিধিঃ নীলফামারী ডিমলা উপজেলা ৯ নং ছাতুনামা এলাকার মৃত লালু প্রামানিকের ছেলে সোনাউল্যা মিয়া গত ২৮ মার্চ ২০২১ সালে কার্যবিধি আইনের ৪৩৫/৪৩৯)(ক) ধারায় রিভিশন মোকদ্দমা নীলফামারী জেলা সিনিয়র দায়রা জজ আদালতের একটি মামলা দায়ের করেন। মামলাটি রাষ্ট্র পক্ষের পি.পি অবগত আছেন। মামলায় তার সহদর  ভাই লালু প্রামানিকে ১ নং আসামী করে মোট ৬ জনের নামে মামলাটি করেন। মামলায় অন্যান্য আসামীগন হলেন পাশ্ববর্তী জেলা লালমনিরহাট হাতীবান্ধা উপজেলার উত্তর ধুবনী গ্রামের তালেব মোল্লার ছেলে লতিফ মিয়া, সহিদুল ইসলাম এর স্ত্রী মোছাঃ বেগম, তালেব মোল্লার স্ত্রী  লাল বানু, মৃত্য কিসমত মোল্লার ছেলে তালেব মোল্লা, তালেব মোল্লার ছেলে আব্দুস ছামাদ। 

 মামলা পত্রে  সোনাউল্যা উল্লেখ করেন, পৈত্রিক সূত্রে নিজ নামে থাকা ৩.৮৯ একর জমির মধ্যে বসবাস ও অন্যাংশে বিভিন্ন চাষাবাদ করে আসছে।পরবর্তীতে বি. এস রেকর্ড আমলের সময় সোনা মিয়ার নাম ও তার পিতার সঙ্গে যৌথভাবে বি.এস 

১১৮৯ খতিয়ান প্রস্তুত হয়। ৪০৫১ নং ৮৭ শতক,৩৮২০ দাগে ৪.০৬ একর মধ্যে ১.০১ একর।

গত ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ ইং সালে সকাল বেলা মামলার বাদীপক্ষ নিজের জমি দাবি করে জমিতে থাকা  ক্ষেতের ফসল কেটে নেয়ার হুমকি দেন।

এর এক পর্যায়ে উভয়ের মধ্যে তর্কবির্তক হলে  প্রকাশ্যে সোনামিয়াকে প্রাণ নাশের হুকমি দেয়।

সোনামিয়ার মামলার  পেক্ষিতে বিজ্ঞ নিম্ন আদালত সংশ্লিষ্ট সহকারী কমিশনারকে তদন্তের নির্দেশ দিলে তদন্ত কারী কর্মকর্তা সরেজমিনে তদন্ত করে সোনামিয়ার পক্ষে দখল আছে মর্মে প্রতিবেদন দাখিল করেন। কিন্তু নিম্ন  আদালত উক্ত প্রতিবেদটি কোন প্রকার গুরুত্ব না দিয়ে এমন কি কোন স্বাক্ষী গ্রহন না করে গত ২৮ মার্চ ২০২১ ইং সালে সোনামিয়ার আনিত মামরাটি নতিজাতের আদেশ প্রদান করেন। উক্ত নতিজাত আদেশের সোনামিয়া নিজেকে সংক্ষুব্ধ, ক্ষতিগ্রস্ত ও ন্যায় হতে বঞ্চিত হওযায়  অত্র রিভিশন মামরাটি দায়ের করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *