ডিমলায় অজ পাড়াগাঁয়ে নতুন পাকা রাস্তা হওয়ায়, স্বস্তির নিঃশ্বাস এলাকাবাসীর

 

ডিমলা নীলফামারী প্রতিনিধিঃ বাংলাদেশ সরকারের এলজিইডি ও প্রভাতী প্রকল্পের  অর্থায়নে অজ পাড়াগাঁ, উত্তর সোনাখুলী হতে ডালিয়া তালতলা R and h প্রায় ২ কিলোমিটার   পাকা রাস্তা হওয়ায়, স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলছেন এলাকাবাসী। ওই এলাকার বসবাসকারী মোঃ এছর উদ্দিন, নুরুল হক, রায়হান ইসলাম, গৌতম রায় ও দুলাল হোসেন বলেন, হামরা কোন দিন ভাবী নাই এই রাস্তা পাকা হইবে। 

এসময় আরো কথা হয়, মিঠুন চোধুরী এর সঙ্গে তিনি বলেন একটি পাকা রাস্তা নির্মাণের ফলে  এলাকাবাসী সহ সকল জনসাধারণের জীবন যাত্রার মান পাল্টে দেয়। অটোচালক দুলু, আশরাফ আলী ও খায়রুল ইসলাম বলেন, দীর্ঘদিন ধরে দেখে আসতেছি এই রাস্তাটি একটুখানি পানি হলে হাটুপরিমাণ কাঁদো হয়ে যায়,,যার কারনে,যাত্রী ও মালামাল বহন করা আমাদের জন্য খুবই কষ্টকর। এখন রাস্তা টি পাকা হওয়ায় আমরা আনন্দিত।  

 ১ কোটি ২৮ লক্ষ টাকা ব্যায়ে রাস্তাটির টেকসই সম্পর্কে জানতে চাইলে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মের্সাস জহুরুল হক দুলাল এর পক্ষে ঠিকাদার হাবিবুল ইসলাম, আনিচুর রহমান (মিঠু) ও আমিনুর খাঁন বলেন, আশা করি চলমান রাস্তাটি যেভাবে কাজ করা হচ্ছে তাতে ৪/৫ বছরের মধ্যে আর কোন মেরামত করতে হবেনা ইনশাআল্লাহ। 

রাস্তাটি মেরামতের সার্বিক তৎপরতায় থাকা ডিমলা এলজিইডি উপ সহকারী প্রকৌশলী আব্দুর রহিম,ওয়ার্ক এসিস্ট্যান্ট ছানোয়ার হোসেন, সুপার ভাইজার হালিমুর রহমান বলেন, স্থানীয় সাংসদ বীর মুক্তিযোদ্ধা আবতাফ উদ্দিন সরকার তাঁর অপদার্পনে এবং তাঁর সহযোগীতায় যে সব রাস্তা পাকা করণ ও মেরামত করা হয়েছে, এবং হচ্ছে তা শতভাগ ভাল হয়েছে। 

 আশা করি, এলাকাবাসী যদি রাস্তাটি সার্বক্ষণিক নজরদারিতে রাখেন তাহলে ৫ বছরেও মেরামত করতে হবে না। এ ছাড়া আপনারা জানেন, যে যতটুকু বোঝা বহন করতে পারে, তার চেয়ে যদি তাকে বেশি বোঝা দেয়া হয়, তা যেমন তার পক্ষে বহন করা সম্ভব নয়, ঠিক রাস্তার বেলায় ও তাই। এর জন্য জনসচেতনতার বিশেষ প্রয়োজন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *