চলতি আউশ মওসুমে ধান কাটা শুরু হয়েছে জেলায় ২ লক্ষ ৪৯ হাজার ৭৫০ মেট্রিক টন ধান উৎপাদনের প্রত্যাশা কৃষি বিভাগের

কামাল উদ্দিন টগর,নওগাঁ প্রতিনিধি : নওগাঁ জেলায় মাঠে মাঠে আউশ ধান কাটা শুরু হয়েছে। চলতি আগষ্ট মাসের মাঝামাঝি থেকে ধান কাট শুরু করেছেন জেলার কৃষকরা। কৃষি সম্প্রসারন বিভাগের সূত্র মতে গত ২৫ আগষ্ট পর্যন্ত জেলার ১১টি উপজেলায় ২ হাজার ২শ ২০ হেক্টর জমির ধান কাট হয়েছে। আউশ ধান কাটা চলবে সেপ্টেম্বর মাসের মাঝামাঝি পর্যন্ত। আউশ ধান কাটার পর কৃষকরা সে জমিতে স্থানীয় জাতের রোপা আমন ধানের চারা রোপন করবেন। এর মধ্যে কিছু কিছু জমিতে রবি ফসল সরিষা চাষ করবেন বলেও জানিয়েছে কৃষি বিভাগ। চলতি বছর আবাদকৃত জমি থেকে ২ লক্ষ ৪৯ হাজার ৭৫০ মেট্রিকটন ধান উৎপাদিত হবে বলে কৃষি বিভাগের প্রত্যাশা। উল্লেখিত পরিমাণ ধান থেকে চাল পাওয়া যাবে ১ লাক্ষ ৬৬ হাজার ৫শ মেট্রিক টন।

নওগাঁ কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ মোঃ আবু হোসেন জানিয়েছেন এ বছর জেলায় মোট ৫৫ হাজার ৫শ হেক্টর জমিতে আউশ ধানের আবাদ হয়েছে। কৃষকরা চলতি মওসুমে ব্রি-ধান ৪৮ জাতের আউশ ধান সবচেয়ে বেশী চাষ করেছেন। চাষকৃত ধানের অন্য জাতগুলো হচ্ছে ব্রি-ধান-২৮, ব্রি-ধান-৫৬, ব্রিধান- ৫৬, ব্রিধান ৬৫, ব্রিধান-৮২, ব্রিধান-৮৫, বিনা-১৯, পারিজা, বিআর-২১ এবং জিরা জাতের ধান রয়েছে।

উপজেলাভিত্তিক আউশ ধান চাষের পরিমাথ হচ্ছে নওগাঁ সদর উপজেলায় ৩৬৯৫ হেক্টর, রানীনগর উপজেলায় ১১৫০ হেক্টর, আত্রাই উপজেলায় ১৭২০ হেক্টর, বদলগাছি উপজেলায় ১৫৬০ হেক্টর, মহাদেবপুর উপজেলায় ১৩ হাজার ১১০ হেক্টর, পতœীতল্ াউপজেলায় ৬৮৫০ হেক্টর, ধামইরহাট উপজেলায় ২২৮০ হেক্টর , সাপাহার উপজেলায় ৭৯৫ হেক্টর, মান্দা উপজেলায় ১৪ হাজার ৩১০ হেক্টর, মান্দা উপজেলায় ১৪ হাজার ৩১০ হেক্টর এবং নিয়ামতপুর উপডজেলায় ৯১২০ হেক্টর।

কৃষি বিভাগের দেয়া তথ্যমতে প্রতি হেক্টর জমিতে ৪ দশমিক ৫ মেট্রিক টন হিসেবে জেলায় এ বছর মোট আউশ ধান উৎপাদিত হবে ২ লক্ষ ৪৯ হাজার ৭৫০ মেট্রিক টন। প্রতি বিঘা থেকে ৩ মেট্রিক টন হিসেবে চাল উৎপাদিত হবে ১ লক্ষ ৬৬ হাজার ৫শ মেট্রিক টন।#

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *