উত্তর বড়ভিটা দলবাড়ী যাওয়ার একমাত্র কাঁচা রাস্তাটি বেহাল দশা, দেখার কেউ নেই!

রউফুল আলম, স্টাফ রিপোর্টারঃ ছিটমহল এলাকা নামে পরিচিত বড়ভিটা ইউনিয়নের উত্তর বড়ভিটা দলবাড়ী যাওয়ার একমাত্র কাঁচা রাস্তাটি বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে। এক পশলা বৃষ্টি হলেই রাস্তাটি কর্দমাক্ত হয়ে পড়ায় চলার অনুপযোগী হয়ে পরে। যা দেখার কেউ নেই!

জানা গেছে, বড়ভিটা ইউনিয়নের অন্যতম জনবসতিপূর্ণ দলবাড়ী একটি গ্রাম। দলবাড়ী গ্রামের লোকজন বড়ভিটা হয়ে মধ্যপাড়া দিয়ে শুকনো ও বর্ষা মৌসুমে তাদের যাতায়াতের জন্য একমাত্র রাস্তা এটি। বড়ভিটা বাজার থেকে দলবাড়ীর দূরত্ব কমপক্ষে ২/৩ কিলোমিটার হবে।

এই কাচা রাস্তাটির প্রধান যানবাহন হচ্ছে ভ্যান, ভ্যাটারিচালিত অটো রিক্সা, বাইসাইকেল ও মোটরসাইকেল । এই রাস্তার বর্তমানে বেহাল অবস্থার কারণে কোনো যানবাহন চলাচল করতে পারছে না। ফলে হাজারো মানুষের ভোগান্তির মধ্যে পড়তে হচ্ছে।


জরুরি কোনো রোগীকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কিশোরগঞ্জ উপজেলা সদরে নিতে চাইলে ২/৩ কিলোমিটার রাস্তা হেটে আসতে হবে যা সেই রোগীর জন্য অসম্ভব। এমনকি যথাসময়ে রোগীকে হাসপাতালে নিতে না পারলে মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে। দলবাড়ীর কৃষি নির্ভর অঞ্চল, যা’  বড়ভিটা বাজারে কৃষি ফসলাদি পরিবহনের একমাত্র প্রধান সড়ক এটি হওয়ায় কৃষকদের ভোগান্তি যেন শ্বাসরুদ্ধকর।

এছড়াও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যাতায়াতের প্রধান এই সড়কে শিক্ষার্থীদের চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। 
এ বিষয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন, লেলিন বসনিয়া ও আঃ হামিদ মাস্টার, সাংবাদিক দুলাল হক, সাংবাদিক নিশাদ হোসেন ও স্টাক রিপোর্টার রবিউল ইসলাম  বলেন, একটু বৃষ্টি হলেই রাস্তাটি কর্দমাক্ত হয়ে চলার অনুপযোগী হয়ে পরে। আমরা বর্তমান উন্নয়ন বান্ধব সরকারের কাছে আবেদন জানাই অতি দ্রুত রাস্তাটি সংস্কার করে জন দুর্ভোগ লাগব করা হোক।

কিশোরগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি আবু তাহের বলেন, রাস্তাটি চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়ায় গ্রামের শিক্ষার্থীরা অধিকাংশ সময় বিদ্যালয়ে সঠিক সময়ে উপস্থিত হতে পারে না।
এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূরে আলম সিদ্দিকী জানান, জনদুর্ভোগ নিরসনে রাস্তা নির্মাণে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে প্রস্তাব পাঠান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *