আপনারা সন্তানদেরকে কখনোই মোবাইল ফোন হাতে দেবেন না-(ওসি)মোঃ বজলুর রশিদ।

এনামুল মবিন(সবুজ)

স্টাফ রিপোর্টার.

দিনাজপুর চিরিরবন্দরে শহীদ মোতালেব হোসেন রেসিডেন্সিয়াল মডেন স্কুল প্রাঙ্গনে ছাত্র-ছাত্রী, স্কুলের পরিচালনা পর্ষদ, শিক্ষক-শিক্ষিকামন্ডলী ও অভিভাবকের মধ্যে মত বিনিময়ের লক্ষ্যে এক অভিভাবক সমাবেশ ও পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

শনিবার (২৬ নভেম্বর) সকালে উপজেলার শান্তিবাজর শহীদ মোতালেব হোসেন রেসিডেন্সিয়াল মডেল স্কুল প্রাঙ্গণে টি.এইচ ফাউন্ডেশনের পরিচালক ডাঃ মোঃ আলতাফ হোসেনের সভাপতিত্বে অভিভাবক সমাবেশ ও পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠান প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চিরিরবন্দর থানা অফিসার ইনচার্জ(ওসি)মোঃ বজলুর রশিদ।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, মেহের-হোসেন রেসিডেন্সিয়াল মডেল স্কুলের প্রধান শিক্ষক জনাব, মোঃ মিজানুর রহমান, চিরিরবন্দর থানার সেকেন্ড অফিসার মোঃ নুর আলম, ৬নং অমরপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ ইকবাল হোসেন কাজী।

বজলুর রশিদ(ওসি) বলেন, আজকের অভিভাবক সমাবেশে উপস্থিত হতে পেরে আমি নিজেকে ধন্য মনে করছি। এই সমাবেশে অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে আমি  মেসেজ দিতে চাই। মেসেজটি হলো মোবাইলের অপব্যবহার। আপনারা স্কুলপড়ুয়া সন্তানদেরকে কখনোই মোবাইল ফোন হাতে দেবেন না। মোবাইল ফোন আমাদের অনেক সাফল্য বয়ে আনে পাশাপাশি অপব্যবহারও আছে। এই সন্তানরা যে মোবাইল ফোন ব্যবহার করবে এটা ব্যবহার নয় এটা অপব্যবহার। কারণ মোবাইল ফোনে নেট আছে, এছাড়াও নেটে যে অপব্যবহার আছে সেখানে তারা জড়িয়ে যাবে। বিভিন্ন গেংদের সাথে সম্পর্ক স্থাপন করবে, এলাকার বখাটেদের সাথে সম্পর্ক স্থাপন হবে ভুল পথে ধাবিত হবে। আমার কাছে প্রতিনিয়তই ফোন আসে ৬ষ্ঠ শ্রেণী থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত বা এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছে বা দিবে এমন সন্তানরা মোবাইল ফোনের মাধ্যমে সম্পর্কে জড়িয়ে পালিয়ে গিয়েছে। আর এর কুফল হলো বাল্যবিবাহ, মানসিক বিকৃতি।

শহীদ মোতালেব হোসেন রেসিডেন্সিয়াল মডেল স্কুলের শিক্ষার মানোন্নয়ন ও বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে বিশেষ অতিথি,শিক্ষক-শিক্ষিকা ও অভিভাবকবৃন্দরা পরামর্শমূলক বক্তব্য রাখেন।

টি.এইচ ফাউন্ডেশনের পরিচালক ডাঃ মোঃ আলতাফ হোসেন বলেন, “আজকের এ সমাবেশের মাধ্যমে অভিভাবকবৃন্দের চিন্তা-চেতনা, পরামর্শ, ও অভিযোগসমূহ ভবিষ্যতে স্কুলের শিক্ষার মানোন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।”

পরিশেষে তিনি এ অভিভাবক সমাবেশের আলোচনা সভায় অভিভাবকবৃন্দের মধ্যে থেকে যেসব সূচিন্তিত মতামত, পরামর্শ ও দিক-নির্দেশনা সমূহ এসেছে তা দ্রুত বাস্তবায়ন করে আরো শিক্ষার মানোন্নয়ন করা হবে মর্মে অভিভাবকবৃন্দকে আশ্বস্ত করেন।

এছাড়াও অভিভাবক সমাবেশ ও পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে ডাঃ মোঃ মজিবর রহমান, আলহাজ্ব লুৎফর রহমান, ফুলপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ আনতাজ হোসেন, কালীগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক কামরুজ্জামান, আক্কাস আলী, মোঃ সাইফুল্লাহ, আব্দুল লতিফ, মোঃ আসাদুল্লাহ আল গালিব, আহসানুল হাবিব জিহান, মোবাশির আহমেদসহ সকল ক্লাসের ছাত্র-ছাত্রী, অভিভাবকবৃন্দ, শিক্ষক/শিক্ষিকা, কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ, প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিকস মিডিয়ার কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনা সভা শেষে রচনা ও চিত্রাংকন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী বিজয়ী ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে পুরষ্কার বিতরণ করেন অনুষ্ঠানের অতিথিবৃন্দরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *