আটোয়ারীতে পহেলা বৈশাখ বাংলা নববর্ষ ১৪২৯ উদযাপন।

মোঃ ইউসুফ আলী, আটোয়ারী (পঞ্চগড়) প্রতিনিধিঃ অতীতের ভুলত্রুটি ও ব্যর্থতার গ্লানি ভুলে নতুন করে সুখ-শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনায় পঞ্চগড়ের আটোয়ারী উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে বাঙ্গালীর ঐতিহ্য রক্ষা ও পবিত্র মাহে রমজানের মর্যাদা রক্ষা করে সীমিত পরিসরে উদযাপিত হলো পহেলা বৈশাখ বাংলা নববর্ষ । এ উপলক্ষে সকাল সাড়ে ১০টায় উপজেলা পরিষদ চত্বর হতে বর্ণীল সাজ-সজ্জায় সজ্জিত হয়ে মঙ্গল শোভা যাত্রা বের করা হয়।

শোভা যাত্রাটি উপজেলার গুরুত্বপুর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে আবার উপজেলা পরিষদ চত্বরে এসে শেষ হয়। শোভা যাত্রা শেষে উপজেলা পরিষদ চত্বরে সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মুসফিকুল আলম হালিম।

আইসিটি প্রেগ্রামার মোঃ সহিদুল ইসলামের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ তৌহিদুল ইসলাম। শোভ যাত্রা ও আলোচনায় অংশ গ্রহণ করেন উপজেলা পরিষদ ও প্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারী, রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, বীর মুক্তিযোদ্ধা, বিভিন্ন স্কুল -কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, এনজিও প্রতিনিধি, সুধিজন সহ গণমাধ্যমকর্মীগণ।

প্রধান অতিথি বলেন, অতীতে বাংলা নববর্ষের মুল উৎসব ছিল হালখাতা। গ্রামে- গঞ্জে ব্যবসায়ীরা নববর্ষের শুরুতে তাদের পরোনো হিসাব-নিকাশ সম্পন্ন করে নতুন হিসাবের খাতা খুলতেন। এ উপলক্ষে তারা নতুন-পুরাতন খদ্দেরকে আমন্ত্রণ জানিয়ে মিষ্টি বিতরণ করতেন। এবং নতুনভাবে তাদের সঙ্গে ব্যবসায়ীক যোগসুত্র স্থাপন করতেন। চিরাচরিত এ অনুষ্ঠানটি আজও পালিত হয়। আমাদের মহান স্বাধীনতার পর ধীরে ধীরে এই উৎসব নাগরিক জীবনে প্রভাব বিস্তার করতে শুরু করে। পহেলা বৈশাখের বর্ষবরণ অনুষ্ঠানে বাঙ্গালীর অসাম্প্রদায়িক এবং গণতান্ত্রিক চেতনার বহি:প্রকাশ ঘটতে থাকে।