আজ মহাসপ্তমীঃ মহাদেবীর মহোৎসব

ডিমলা নীলফামারী প্রতিনিধিঃ আজ মহাসপ্তমী : মহাদেবীর মহোৎসব 

শান্তি, সাম্য আর ভ্রাতৃত্বের অমর বাণী শোনাতে এক বছর পরে শারদ উৎসবে স্বর্গালোক থেকে মর্ত্যে এসেছেন দুর্গতিনাশিনী মহামায়া মা দুর্গা। মহাসপ্তমী পুজা সম্পর্কে জানতে চাইলে শঠিবাড়ী বাজার সার্বজনীন দূর্গা মন্দির সভাপতি বিশিষ্ট সমাজসেবক শ্রী কানাই লাল কর্মকার বলেন 

পুরাণ মতে, রাজা সুরথ প্রথম দেবী দুর্গার আরাধনা শুরু করেন। বসন্তে এ পূজার আয়োজন করায় এ পূজাকে ‘বাসন্তী পূজা’ বলা হয়।

রামায়ণ যুগের অবতার শ্রী রামচন্দ্র লংকা অধিপতি রাবণের অশোক বনে বন্দি সহধর্মিণী সীতাকে উদ্ধার করতে যাত্রার আগে শরৎকালের আমাবস্যা তিথিতে দুর্গতিনাশিনী দেবী দুর্গার স্ত‚তি করেছিলেন। অবতার রামচন্দ্রের শরৎকালের অকাল বোধনের তিথিতে প্রতিবছর বাঙালি হিন্দু সম্প্রদায় আয়োজন করে মহাদেবীর মহোৎসব।

বছরান্তে আশ্বিন-কার্তিকের পঞ্চমী থেকে দশমী তিথির পাঁচটি দিবস ‘জগজ্জননী’ উমা দেবীর পিতৃগৃহ ঘুরে যাওয়া। মণ্ডপে মণ্ডপে ঢাকের বোলে যেন ধ্বনিত হচ্ছে বাঙালি হিন্দুর হৃদয়তন্ত্রীতে বাঁধভাঙ্গা আনন্দের জোয়ার। দেশের হাজার হাজার পূজামণ্ডপ এখন উত্সব মাতোয়ারা।

ষষ্ঠী পূজার মধ্য দিয়ে গতকাল শুক্রবার সকালে শুরু হয়েছে বাঙালি হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব ৫ দিনের শারদীয় দুর্গাপূজা।

৫ দিনব্যাপী সার্বজনীন এ ধর্মীয় উৎসবকে ঘিরে নীলফামারীর ডিমলা উপজেলায় দেশ জুড়ে শুরু হয়েছে আনন্দ ও উৎসাহ-উদ্দীপনা। উৎসবের প্রথম দিনে গতকাল ষষ্ঠীতিথিতে মণ্ডপে মণ্ডপে দেবীর অধিষ্ঠান হয়। সকালে ষষ্ঠাদি কল্পারম্ভ এবং বেলতলা কিংবা বেল গাছের নিচে দেয়া হয় ষষ্ঠী পূজা। দেবীর বোধন, আমন্ত্রণ ও অধিবাসের মধ্য দিয়ে শুরু হয় পূজার আনুষ্ঠানিকতা।ঢাকের বাদ্য, শঙ্খ আর উলুধ্বনির শব্দ দেবী দুর্গার মর্ত্যে আগমনের জানান দিচ্ছে। পূজার মন্ত্রোচ্চারণ, আরতি আর মাইকের আওয়াজে এখন মাতোয়ারা সারা ডিমলা উপজেলা পূজামণ্ডপগুলো।

২ অক্টোবর সকালে নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার ঐতিহ্যবাহী শঠিবাড়ী বাজার  সার্বজনীন দূর্গা মন্দিরে দুর্গোৎসব পরিদর্শন করেন ডিমলা থানা ওসি তদন্ত বিশ্বজিৎ রায়। এ সময় শঠিবাড়ী বাজার সার্বজনীন দূর্গা মন্দির সভাপতি বিশিষ্ট সমাজসেবক যিনি নিজ উদ্যোগে নিজ বাড়িতে প্রতি বছরের ধারাবাহিকতায় এবারেও অনেক জাঁকজমকপূর্ণভাবে দূর্গা উৎসব পালন করছেন শ্রী কানাই লাল কর্মকার। এতে আরো উপস্থিত ছিলেন সাধারণ সম্পাদক ৮ নং ঝুনাগাছ চাপানী ইউপি সচিব শ্রী সুভাষ চন্দ্র রায় প্রমূখ । 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *